বাউফলে পৃথক দুই ঘটনায় দুই জনের লাশ উদ্ধার

0

কৃষ্ণ কর্মকার, বাউফল : পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়নের চরআলগী গ্রামে শনিবার সকালে মোসা. পপি বেগম (২০) নামে এক নারীর গতকাল ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ । এদিকে শুক্রবার রাতে বাবার সঙ্গে অভিমান করে মো. ইব্রাহিম খলিল (১৭) নামে এক যুবক আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার চন্দ্রদ্বীপ ইউনিয়নের চরআলগী গ্রামের বাসিন্দা মো. জাকির হোসেন হাওলাদারের মেয়ে পপির সঙ্গে তিন মাস আগে একই উপজেলার মদনপুরা গ্রামের বাসিন্দা সেলিম হাওলাদারের ছেলে মো. সোহেলের বিবাহ হয়। বিবাহের পর থেকেই বাপের বাড়িতে অবস্থান করছিলেন পপি। শনিবার ভোরে পপি ঘুম থেকে উঠে ঘরের বাইরে যান। পরে সকাল সাড়ে সাতটার দিকে বাড়ির পাশে একটি জামরুল গাছের সঙ্গে পপির ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায় তাঁরই ছোট বোন পুতুল (১৩)। তার চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ছুটে আসে। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করেছে।

এদিকে উপজেলার কালাইয়া ইউনিয়নের কর্পূরকাঠি গ্রামের বাসিন্দা মো. হাবিবুর রহমান মাতব্বরের ছেলে মো. ইব্রাহিম খলিল মাতব্বর তাঁর বাবার সঙ্গে অভিমান করে আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

স্থানীয় লোকজন, পুলিশ ও ইব্রাহিমের স্বজনদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সম্প্রতি সব জমি বিক্রি করে ঢাকায় চলে যায় ইব্রাহিমের বাবা মো. হাবিবুর রহমান মাতব্বর। এ নিয়ে বাবা ও ছেলের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। হতাশায় ভুগছিলেন ইব্রাহিম। আর ওই হতাশা থেকেই সে গত শুক্রবার রাতে ঘরের আড়ার সঙ্গে রশিতে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে ধারনা করা হচ্ছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করেছে।

বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আ জ ম মাসুদুজ্জামান সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন,‘নিহত পপি এবং ইব্রাহিমের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পটুয়াখালী জেনারেল হাসপতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।’