বাউফলে মামলার স্বাক্ষী হওয়ায় !

6

অতুল পাল, বাউফল বিশেষ প্রতিনিধি: বাউফলে মামলার স্বাক্ষী হওয়ায় তাদের মিথ্যা মামলা দিয়ে তাদেরকে হয়রানি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার বগা ইউনিয়নের কৌখালী গ্রামে এঘটনা ঘটেছে।

জানা গেছে, বাউফলের বগা ইউপির কৌখালী গ্রামের ইদ্রিস হাওলাদারের স্ত্রী রানী বেগম গত ২১ জুলাই জমি বিক্রি করা ৮০ হাজার টাকা নিয়ে পটুয়াখালী সদর থানার কমলাপুর ইউনিয়নের ভায়লা গ্রাম থেকে বাড়ি ফিরছিল। এসময় একই গ্রামের একই গ্রামের রাজ্জাক হাওলাদারের ছেলে নিজাম হাওলাদার ওরফে এ্যাসিড নিজামসহ তিন জনের একটি সংঘবদ্ধ দল রানী বেগমের টাকা ছিনতাই করে নেয়। ঘটনার পর পটুয়াখালীর সদর থানায় তাদের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছিল। ওই মামলায় স্থানীয় আবদুর রহমান মাস্টারের ছেলে বশির হাওলাদারকে স্বাক্ষী করা হয়েছিল। ঘটনার জের ধরে এ্যাসিড নিজামের বাবা রাজ্জাক হাওলাদার রানী বেগমের মামলার স্বাক্ষী বশির হাওলাদার, তার বড় ভাই নাসির হাওলাদার ও চাচাতো ভাই দোলোয়ার হোসেন হাওলাদারকে আসামী করে গত ৫ অক্টোবর বাউফল থানায় একটি ছিনতাইর মামলা দায়ের করেন। বশির হাওলাদার গতকাল শনিবার দুপুরে স্থানীয় সাংবাদিকদের বলেন, রানী বেগমের মামলার স্বাক্ষী হওয়ার অপরাধে রাজ্জাক হাওলাদার তাকেসহ তার দুই ভাইকে হয়রানির উদ্দেশ্যে এই মিথ্যা মামলা দায়ের করেছেন। তিনি বলেন তিনজনের মধ্যে দু’জন ঘটনার সময় ঢাকা ছিলেন। এবিষয়ে জানতে রাজ্জাক হাওলাদারের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি। বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আযম খান ফারুকী বলেন, মামলাটির তদন্ত চলছে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।