বাউফলে শিক্ষক লাঞ্চিত শিক্ষার্থীদের ক্লাস বর্জন ও বিক্ষোভ

2

 

কৃষ্ণ কর্মকার, বাউফল : পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার কনকদিয়া ইউনিয়নের স্যার সলিমুল্লাহ স্কুল এন্ড কলেজে শিক্ষকদের লাঞ্চিত করার প্রতিবাদে শিক্ষার্থীরা ক্লাস বর্জন করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে। বৃহস্পতিবার সকালে শিক্ষক লাঞ্চিতকারী স্থানীয় বখাটে যুবক মো. আল আলামিন ওরফে জুলির বিচারের দাবীতে এ বিক্ষোভ প্রদর্শন হয়।

সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। ওই অনুষ্ঠানে স্থানীয়দের জন্য ধীর গতিতে মোটরসাইকেল চালানোর প্রতিযোগিতা হয়েছিল। এতে বখাটে জুলিও অংশ নেয়। প্রতিযোগিতায় হেরে গিয়েও জুলি প্রথম পুরস্কার দাবি করে। তাকে পুরস্কার না দেওয়ায় ক্ষুদ্ধ হয়ে এরপর থেকেই শিক্ষকদের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরন এবং দুইজন শিক্ষককে লাঞ্চিত করেন। এর প্রতিবাদে শিক্ষার্থীরা বৃহস্পতিবার ক্লাস বর্জন করে বিদ্যালয় মাঠে এ কর্মসূচি পালন করেছে। কয়েকজন শিক্ষার্থী জানায়, ওই বখাটেকে খুব দ্রুত গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি না দিলে আরও কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।

স্কুল এন্ড কলেজের প্রধান শিক্ষক (ভারপ্রাপ্ত) নার্গিস আখতার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন,‘বিষয়টি পরিচালনা কমিটির সভাপতি মো. রফিকুল ইসলামকে জানানো হয়েছে। তিনি আইনের আশ্রয় নেওয়ার জন্য বলেছেন’।

বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আ জা ম মাসুদুজ্জামান বলেন,‘খবর পেয়ে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বখাটেকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। এ ব্যাপারে অবশ্যই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।’