বাউফলে হিন্দু পরিবারের কাছে চাঁদা দাবি: অন্যথায় দেশ ছাড়ার হুমকি

0

অতুল পাল বিশেষ প্রতিনিধি: পটুয়াখালীর বাউফলে দাশপাড়া ইউনিয়নের খাজুরবাড়িয়া গ্রামে কয়েকটি হিন্দু পরিবারের কাছে চাঁদা দাবি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। অন্যথায় তাদেরকে দেশ ছেড়ে চলে যেতে হবে বলে হুমকি দেয়া হয়েছে। এরফলে ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে হিন্দু পরিবারের লোকজন হাট-বাজারে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন।

ভূক্তভোগিদের থেকে জানা গেছে, দাশপাড়া ইউনিয়নের খাজুরবাড়িয়া গ্রামের সাহেব আলী হাওলাদারের ছেলে হেলাল উদ্দিন, রাজ্জাক হাওলাদারের ছেলে কামরুল ইসলাম, কাজী মোন্তাজের ছেলে কাজী মাহাবুবুলসহ একটি সংঘবদ্ধ দল তাদের পাশেই থাকা মৃত্যু গোলক চন্দ্র সিকদারের ছেলে সূধীর সিকদারের কাছে বেশ কিছু দিন পর্যন্ত চাঁদা দাবি করে আসছে। অভিযোগ রয়েছে, স্থানীয় ইউপি সদস্য আশ্রাফ চৌধুরী ওই চাঁদাবাজদের মদদ দিয়ে যাচ্ছেন। কিছুদিন আগে ওই ইউপি সদস্যের প্ররোচনায় একই গ্রামের গনেশ সিকদারের ছেলে গোবিন্দ সিকদারকে ধর্মান্তরিত করারও অভিযোগ রয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই গ্রামের একাধিক ব্যাক্তি জানান, ইউপি সদস্য ও বিএনপি নেতা আশ্রাফের নেতৃত্বে এখানে একটি সন্ত্রাসি গ্রুপ পরিচালিত হচ্ছে। তাদের ভয়ে ওই গ্রামের নেপাল সিকদার, নকুল কীর্ত্তনীয়া, হরলাল মিস্ত্রি, পরিমল মিস্ত্রি ও প্রেমানন্দ মিস্ত্রিসহ অনেক পরিবার অন্যত্র চলে যাওয়াসহ দেশ ত্যাগ করেছেন। এদিকে সূধীর সিকদার জানান,  তিনি ও তার পরিবারের লোকজন চাঁদার ভয়ে ঘর ছেড়ে বাহিরে আসতে পারছেননা। এব্যাপারে ইউপি সদস্য আশ্রাফ চৌধুরী বলেন, বিষয়টি সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং বানোয়াট। এখানে অন্য একটি সামাজিক সমস্যা রয়েছে। ওই ঘটনাকে অন্যখাতে প্রবাহিত করার জন্য আমিসহ কিছু লোকের বিরুদ্ধে এ ধরণের  অভিযোগ করা হচ্ছে। আমি এখন ঢাকায় অবস্থান করছি। প্রয়োজনে সাংবাদিকদের নিয়ে আমরা সূধীরের মুখোমুখি কথা বলতেও রাজি আছি।

বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আযম ফারুকী জানান, চাঁদা দাবি কিংবা দেশ ত্যাগের হুমকিদাতাদের কোন ছাড় দেয়া হবেনা। বিষয়টি তিনি খতিয়ে দেখবেন।