বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠানে দুই পক্ষের সংর্ঘষে নারী-শিশুসহ আহত- ১৩

0

ডেস্ক রিপোর্ট : পটুয়াখালীর সদর উপজেলার ইটবাড়িয়া ইউনিয়নে দুর্গাপুর প্রি-ক্যাডেট বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠানে দুই পক্ষের সংঘর্ষে কমপক্ষে ১৩ জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে মকবুল ফকির(৩৫), সবুজ ফকির(১৮), শিশু সাদিয়া (৮), নাসির(৩০) এবং বাবু (২০) কে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সবুজ ফকিরের অবস্থা গুরুতর হওয়ায়  উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছেঅ। বাকীরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছে বলে দাবী করেছে আহতদের পরিবার। থানায় মামলা হয়েছে।

 

পুলিশ ও আহত মকবুল হোসেনের স্ত্রী হালিমা বেগম জানান, ২৭ ফেব্রুয়ারি শনিবার সদর উপজেলার ইটবাড়িয়া ইউনিয়নে দুর্গাপুর প্রি-ক্যাডেট বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি মনোয়নকে কেন্দ্র করে এলাকার দুই পক্ষের ঝগড়া বাঁধে। শনিবার ক্রীড়া অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পর  রাত সাড়ে ৮টার দিকে মোঃ মকবুল ফকির বাড়ির পূর্বে পাকা রাস্তার উপর পৌছলে  লাঠি ,রড, দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আবদুল হাওলাদার (৩৫), সেলিম হাং (৪০), মোঃ নাছির (৩০), সুলতান মৃধা (৪০), রফিক মৃধা(৪০), ফিরোজ মৃধা (৩২), শুক্কুর খান (২২),রমজান হাং(১৮), মামুন মৃধা(২২), মোঃ শাকিল (২৬), মোঃ ইলিয়াস (১৮),বাবু (২০) এবং সফিক (২০)  তাদের উপর  আক্রমন  করে । এ সময় মকবুল ফকির  ডাকচিৎকারে দিলে তার পক্ষের লোকজন সেখানে আসলে উভয় পক্ষের মধ্যে সংর্ঘষ বাঁেধ। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ১৩ আহত হয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। পুলিশ নাসির ও বাবু নামে ২ জনকে আটক করে ।

 

এ বিষয়ে পটুয়াখালী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কে এম তারিকুল ইসলাম জানান, সংঘর্ষের খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে। পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রনে রয়েছে।##