মাদক বিক্রির প্রতিবাদ করায় মা- ছেলেকে আহত

1

 

স্টাফ রিপোর্টারঃ পটুয়াখালীতে বাড়ির সামনে মাদক দ্রব্য সেবন ও কেনাবেচার প্রতিবাদ করায় বাসাবাড়িতে হামলা চালিয়ে মা ও ছেলেকে মারধর করে নগদ ৩২ হাজার টাকা সহ ৮২হাজার টাকা মূল্যের স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়েছে মাদকসেবী সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনাটি ঘটেছে পটুয়াখালী সদর উপজেলার মাদারবুনিয়া ইউনিয়নের পশ্চিম হেতালিয়া গ্রামে। এ সন্ত্রাসী ঘটনায় ইমাম তালুকদার(৩০), আবুবকর তালুকদার(২৫), আলী হোসেন তালুকদার(২২), ইমন সর্দার(২০), রুবেল(২৭) ও সোহাগ (২২) কে চিহ্নিত করে অজ্ঞাতনামা ৪/৫জন আছে আসামীকরে পটুয়াখালী বিজ্ঞ আইন-শৃংখলা বিগ্নসৃষ্টিকারী অপরাধ (দ্রুত বিচার) আদালতে একটি মামলা করেছেন আহত সজিবের মাতা রোকেয়া পারভীন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরনে জানাগেছে, রোকেয়া পারভীন তার প্রথম ও দ্বিতীয় স্বামী মারা যাওয়ার পর দ্বিতীয় স্বামীর বাড়ি পশ্চিম হেতালিয়া গ্রামের বাড়িতে তার সন্তানদের নিয়ে বসবাস করে আসছিল। আসামীরা সন্ত্রাসী মাদক ব্যবসায়ী। সন্ত্রাসীরা বাড়ির সামনে বসে মাদক সেবন করে এবং কেনাবেচা করে। এতে রোকেয়া পারভীনের ছেলে সজিব প্রতিবাদ করে। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে উক্ত মাদক  সন্ত্রাসীদের প্রধান ইমাম তালুকদার ও আবুবকর তালুকদারের নেতৃত্বে অন্যান্য সন্ত্রাসীরা ঘটনারদির ২৩ নভেম্বর বুধবার আনুমানিক ১০টার দিকে দেশী তৈরী দা, লোহার রড, শাবল ও লাঠি সোটা নিয়ে বাড়িতে এসে সজিবকে উদ্দেশ্য করে ডাকচিৎকার করে  শাবল দিয়ে দরজা ভেঙ্গে ঘরে জোরপূর্বক অনধিকার প্রবেশ করে সজিবকে মারধর করে হত্যার চেষ্টা করে। এ সময় মা রোকেয়া পারভীন ছেলেকে বাঁচাতে গেলে সন্ত্রাসীরা তাকে মারধর করে ফুলাজখম করে বীরদর্পে চলে যায়। সন্ত্রাসীরা যাবার সময় মামলা মকদ্দমা না করার জন্য শাসিয়ে যায় বলেও বাদী রোকেয়া পারভীন জানান।