মির্জাগঞ্জে চালিতাবুনিয়া উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রটি চিকিৎসা সেবা ব্যহত

3

 

মোঃ বাদল হোসেন, মির্জাগঞ্জ প্রতিনিধি ঃ পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলার চালিতাবুনিয়া উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রটি চিকিৎসা সেবা ব্যহত হচ্ছে। জানা যায়, উপজেলার সুলতানাবাদ উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রটির উপ-সহকার কমিউনিটি অফিসার মোঃ সাগর দত্ত নিয়মিত স্বাস্থ্য কেন্দ্রে না এসে পাশ্ববর্তী বেতাগী উপজেলায় নিজে চেম্বার খুলে বসে রোগী দেখেন। সপ্তাহে একদিন মন চায় তাহলে অফিসে আসেন। নিয়মিত স্বাস্থ্য কেন্দ্রে না আসায় শত শত রোগী পড়েন চরম ভোগান্তীতে। তাদেরকে ১৫ থেকে ২০ কিঃমিঃ পথ অতিক্রমে করে চিকিৎসা নিতে আসতে হয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। এলাকাবাসীর অভিযোগের ভিত্তিতে সরেজমিনে গিয়ে বুধবার বেলা ১১টায় গিয়ে দেখা যায় রোগীরা ডাক্তারের জন্য অপেক্ষ করছেন এবং স্বাস্থ্য কেন্দ্রটি তালাবদ্ধ। চিকিৎসা নিতে আসা সুলতানাবাদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মোঃ মনিরুল হক বলেন আমি অসুস্থ ডাক্তারের কাছে এসেছিলাম ডাক্তার নাই। রোগী মোঃ শহীদুল ইসলাম বলেন, ডাক্তার নিয়মিত না আসায় এখান থেকে ফিরে যেতে হচ্ছে। সেলিনা বেগম বলেন আমি গতকালও এসেছি ডাক্তারের কাছে তাকে পাইনি আজও এসেছি কিন্তু ডাক্তার নেই স্বাস্থ্য কেন্দ্রটি তালাবদ্ধ।

ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতা মাসুদ বলেন, উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রটি প্রতিদিনই বন্ধ থাকে। আমরা শত অভিযোগ দিয়েও কোন লাভ হয়নি। এটা দেখার জন্য কেউ নেই। এ ব্যাপারে উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার সাগর দত্ত বলেন আমার পারিবারিক ঝামেলার কারনে মাঝে মধ্যে অফিসে আসতে আমার একটু বিঘœ ঘটে। উপজেলা ভারপ্রাপ্ত স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মোঃ মনির হোসেন বলেন, গত মঙ্গলবার উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ্ মোঃ রফিকুল ইসলাম চালিতাবুনিয়া স্বাস্থ্য কেন্দ্রটিতে পরিদর্শনে গেলে তালাবদ্ধ দেখে আমাকে জানালে তাৎক্ষনিক ভাবে তাকে শোকজ করা হয় এবং আজও অফিস না করায় তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।