মির্জাগঞ্জে জোয়ারের প্রভাবে ফসলী জমি ও বিদ্যালয় প্লাবিত

0

মোঃ বাদল হোসেন, মির্জাগঞ্জ প্রতিনিধি ঃ পূনির্মার জোয়ারের প্রভাবে পায়রা ও শ্রীমন্ত নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে মির্জাগঞ্জসহ নি¤œাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। রবিবার স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ৪/৫ ফুট উচুঁতে ¯্রােত প্রবাহিত হয়। জোয়ারের সময় নি¤œাঞ্চল ও বেড়িঁবাঁধের বাইরে বসবাসকারী মানুষের সীমাহীন ভোগান্তির মধ্যে পড়তে হয়েছে। বহু পরিবার উনুনে হাঁড়ি বসাতে পারেনি। এছাড়াও উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান,হাটবাজার, বাড়িঘর,আউশের ক্ষেত ও আমনের বীজতলা তলিয়ে গেছে। জোয়ারের সময় পটুয়াখালী-সুবিদখালী-বেতাগী মহাসড়কের পায়রা নদীর মনোহরখালী ফেরীঘাটের গ্যাংওয়ে তলিয়ে যাওয়ায় যান চলাচল বন্ধ থাকে। এদিকে উপজেলার মির্জাগঞ্জ থানার পিছনে শ্রীমন্ত নদীর ভাঙ্গা ব্লক দিয়ে জোয়ারের পানি ঢুকে ফসলী জমি তলিয়ে গেছে। মির্জাগঞ্জ ইউনিয়ন দরগাহ শরীফ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক  বাবু বাবুল চন্দ্র সিকদার বলেন,শ্রীমন্ত নদীর তীরবর্তী এ বিদ্যালয়টি হওয়ায় এবং নদীর পারে বেড়িঁবাঁধ না থাকায় প্রতি আমাবশ্যা ও পূর্নিমার জোয়ারের প্রভাবে পানি ঢুকে বিদ্যালয়ের নিচের ক্লাশ গুলো তলিয়ে যায়। ফলে ক্লাশ করাতে না পেরে বাধ্য হয়ে স্কুল ছুটি দিতে হয়। এখানে উচুঁ বেড়িঁবাঁধ নির্মান করা হলে এ সমস্যাটি আর থাকবে না। মির্জাগঞ্জ ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ শাহজাহান ফকির বলেন, বছর দুয়েক  আগে পুরাতন থানার সামানে ব্লক ভেঙ্গে যায়। যা আজ পর্যন্ত মেরামত ও পূর্ন নির্মান করেনি পানি উন্নয়ন বোর্ড। শ্রীমন্ত নদীর পানি স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে পানি বৃদ্ধি পেলে এই ভাঙ্গা অংশ দিয়ে পানি প্রবেশ করে বাড়ি-ঘরসহ ফসলী জমি তলিয়ে যায়।