মির্জাগঞ্জ উপজেলার দক্ষিন কলাগাছিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ সাইদুল ইসলাম এর বিরুদ্ধে অভিযোগ দাখিল

2

 

বিশেষ প্রতিনিধিঃ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের ছবি ও প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি অবহেলা ও অপমানের জন্য মির্জাগঞ্জ উপজেলার দক্ষিন কলাগাছিয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ সাইদুল ইসলাম(শাহিন) এর বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়া গেছে। একই এলাকার মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আবুল হোসেন মৃধা বাদি হয়ে তাঁর বিরুদ্ধে সরকারে বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। এমনকি সম্প্রতি মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আবুল হোসেন মৃধাকে মোবাইলে হুমকি ও খুন জখমের ভয়ভীতি দেখানোর অভিযোগে অজ্ঞাতনামা হিসেবে মির্জাগঞ্জ থানায় সাধারন জিডি করেছেন।

অভিযোগে বলা হয়,প্রধান শিক্ষক মোঃ শহিদুল ইসলাম সরকারি চাকরী অবস্থায় বিদ্যালয়ে জঙ্গী সংগঠনের সদস্য হিসেবে কাজ করছেন। গভীর রাতে বিদ্যালয়ের শ্রেনী কক্ষে অপরিচিত লোকজন নিয়ে মিটিংয়ে ব্যস্ত থাকেন। এমনকি বিদ্যালয়ে জাতীয় সংগীত ছাত্র-ছাত্রীদের গাওয়ানো হয় না। তিনি বিভিন্ন সময়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের ছবি ও প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কটু কথা বলেন এবং বঙ্গবন্ধুর ছবি ছিড়ে ফেলেন। এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি এবং সদস্যরা কিছু বললে তাদেরকে ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে। এছাড়াও প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে প্রধান মন্ত্রীর কার্যালয়ে,প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর,মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রানালয়,জেলা পুলিশ সুপার,জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের কাছে একাধিক অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার পাচ্ছেনা মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আবুল হোসেন মৃধা। ওই এলাকার ছাত্র-ছাত্রী অবিভাবকরা প্রধান শিক্ষককের বিরুদ্ধে বলতে সাহস পায় না। এব্যাপারে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ সাইদুল ইসলাম(শাহিন) বলেন বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি নিয়ে আমাকে জড়িয়ে  যে অভিযোগ দিয়েছে তা সম্পন্ন মিথ্যা। আমি বিদ্যালয়ে নিয়মিত সমাবেশ , জাতীয় সংগীত করাই।