শেখ হাসিনা’র স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে দোয়ামিলাদ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

1

 

স্টাফ রিপোর্টারঃ বাংলার শ্রেষ্ট বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা’র ৩৬তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালন উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টায় দৈনিক পটুয়াখালী পত্রিকা আয়োজনে পুরানবাজারস্থ কার্যালয়ে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য জাতীয় সংসদ সদস্য মিসেস লুৎফুন নেছা। সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান দৈনিক পটুয়াখালী পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক এ্যাড. মো. সুলতান আহমেদ মৃধা এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন পটুয়াখালী পৌরসভার মেয়র ও জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. মো. শফিকুল ইসলাম,জেলা আওয়ামীলীগের নেতা কাজী রুহুল আমিন, সাবেক ভিপি আঃ মন্নান, জেলা কৃষক লীগের সভাপতি তসলিম সিকদার, একেএম কলেজের অধ্যক্ষ মো.  দেলোয়ার হোসেন, হাজী হামেজ উদ্দিন মৃধা কলেজের অধ্যক্ষ মো. শাহ আলম, অধ্যাপক আবদুস সালাম, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি কাজী কানিজ সুলতানা হেলেন, সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. মিজানুর রহমান মনির খান, জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি সরদার সোহরাব হোসেন, জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক মো. রাসেদ খান প্রমুখ।

বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা আজকের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা দীর্ঘদিন নির্বাসন শেষে ১৯৮১ সালে দেশে প্রত্যাবর্তন করে বঙ্গবন্ধুর রেখে যাওয়া আওয়ামীলীগের হাল ধরেন এবং তার সুযোগ্য নেতৃত্বে তৃণমূল পর্যায় আওয়ামীলীগকে শক্তিশালী করেন এবং জনগনের ভোটে দেশ পরিচালনার দায়িত্ব পালন করে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের খুনীদেরসহ যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করে দেশকে কলংক মুক্ত করে বিশে^র দরবারে জাতিকে উচ্চ আসনে পরিচিত করেছেন। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা তার সুযোগ্য নেতৃত্বেই দেশ আজ আধুনিক ও সমৃদ্ধশালী দেশে পরিনত হয়েছে। আলোচনা সভা শেষে দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন হাফেজ মো. বশিরউদ্দিন।