শ্বশুর বাড়িতে জামাতার হামলা

3

স্টাফ রিপোর্টারঃ পটুয়াখালীর বাউফলে জামাতা দলবল নিয়ে শ্বশুর বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাট করেছে।  শুক্রবার সন্ধ্যার পরে উপজেলার কেশবপুর ইউনিয়নের মমিনপুর গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানাগেছে, কেশবপুর ইউনিয়নের বাজেমহল গ্রামের আলতাফ মুন্সির ছেলে খোকন মুন্সি ৭ মাস আগে মমিনপুর গ্রামের মন্নান পেয়াদার মেয়ে হাসিনা বেগমকে বিয়ে করেন। খোকন মুন্সির আগে স্ত্রী ও ২ সন্তান থাকা সত্ত্বেও বিষয়টি গোপণ করে তিনি হাসিনাকে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। বিয়ের পর ২ স্ত্রীকে নিয়ে সংসারে দাম্পত্য কলহ তৈরি হয়। পান থেকে চুন খসলেই হাসিনার ওপর তার স্বামী শাররীক ও মানসিক নির্যাতন শুরু করে। নির্যাতন সইতে না পেরে এক পর্যায়ে হাসিনা তার বাবার বাড়ি চলে যায়। পরে হাসিনার বিরুদ্ধে চুরির অভিযোগ এনে তার স্বামী খোকন মুন্সি কেশবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের একটি অভিযোগ দাখিল করেন। হাসিনাও সুবিচার দাবী করে পটুয়াখালী আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে খোকন মুন্সি শুক্রবার সন্ধ্যায় দলবল নিয়ে তার শ্বশুর মন্নান পেয়াদার বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর করে স্বর্ণালংকার, ৭০ হাজার টাকা মূল্যের ১টি গাভী, নগদ টাকা ও গুরুত্বপূর্ণ দলিলপত্র লুট করে নিয়ে যায়। সন্ধ্যায় এ ঘটনায় এলাকাবাসীর মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। হাসিনার মা দেলোয়ারা বেগম বলেন, শাররীক ও মানসিক নির্যাতনের পর তার মেয়েকে চোর সাব্যস্ত করে খোকন ইউনিয়ন পরিষদে অভিযোগ দিয়ে হয়রানী করছে। আবার এখন হামলা চালিয়ে তার সব কিছু লুটপাট করে নিয়েছে। এ ঘটনায় মান্নান পেয়াদা বাদী হয়ে পটুয়াখালী আদালতে একটি মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি নিয়েছেন বলে সাংবাদিকদের জানান ।