স্বাধীনতার পূর্ব থেকেই বঙ্গবন্ধুকে ভালবেসে নৌকায় ভোট দিয়েছেন —চীফ হুইপ আ স ম ফিরোজ

3

অতুল পাল বিশেষ প্রতিনিধি: জাতীয় সংসদের চীফ হুইপ আ স ম ফিরোজ আওয়ামী লীগ নামধারী বর্ণচোরাদের তান্ডব মোকাবেলায় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী ও সমর্থকদের ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছেন। বৃহস্পতিবার বাউফলের নওমালা ইউপিতে নির্বাচন পূর্ব ও নির্বাচনোত্তর আওয়ামী লীগ নামধারী স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মী সমর্থকদের সহিংস হামলায় আহত দলীয়  নেতাকর্মী ও তাদের ক্ষতিগ্রস্ত বাড়িঘর পরিদর্শন করার সময় বিভিন্ন পথ সভায় তিনি এ কথা বলেন। চীফ হুইপ বলেন, স্বাধীনতার পূর্ব থেকেই বাউফলবাসি বঙ্গবন্ধুকে ভালবেসে নৌকায় ভোট দিয়েছেন একইভাবে শেখ হাসিনাকেও ভালবেসে বাউফলবাসি নৌকায় ভোট দিচ্ছে। বাউফলের ১০টি ইউনিয়নের মধ্যে ৯টিতে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীরা বিজয়ী হলেও অন্যান্য সদস্যদের সহায়তায় আওয়ামী লীগের দুর্গ নওমালা ইউনিয়নকে সন্ত্রাসের জনপদ বানিয়ে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের বাড়িঘর ভাংচুর, লুটপাট ও পিটিয়ে এলাকা ছাড়া করে  নৌকার প্রার্থীকে চেয়ারম্যান হতে দেয়নি। অনেক নেতাকর্মী এখন এলাকায় নেই। একটি সভ্য সমাজে এটা হতে পারেনা। সরকার নিশ্চয়ই ওই বর্ণচোরাদের বিচার করবে। এসময় তিনি ধার্য্যসহকারে পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান। তিনি বলেন, কিন্তু একটি চক্র বিএনপি-জামাতের সন্ত্রাসিদের সাথে নিয়ে বাউফলের আওয়ামী লীগকে দুর্বল করতে চায়।  তারা নেত্রীকে বোঝাতে চায় বাউফলে আ স ম ফিরোজের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ দুর্বল। তিনি হুশিয়ার করে বলেন, বাউফলে কিছু বর্ণচোরা আছে, যারা দলের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে তথাকথিত স্বতন্ত্র প্রার্থী দিয়েছেন।  এটা ভাবার কোন অবকাশ নেই। বহু ষড়যন্ত্র করেছেন। কোন লাভ হয়নি। এবার মানুষকে ভালবাসতে শিখুন। চীফ হুইপের কাছে ক্ষতিগ্রস্ত বাড়িঘর ভাঙচুর ও লুটপাটের বর্ণনা দিতে গিয়ে অনেক নারী পুরুষ কান্নায় ভেঙ্গে পরেন। পরিদর্শনের সময় ক্ষতিগ্রস্তরা জানান, সন্ত্রাসিরা বসত ঘরসহ অন্যান্য ভেঙ্গে চুরে তচনচ করে দিয়েছে। পরিদর্শন শেষে চীফ হুইপ নওমালা ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে রহমানকে দেখতে যান। পরিদর্শনের সময় চীফ হুইপের সাথে ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহম্মদ আবদুল্লাহ আল মাহামুদ জামান, ওসি(তদন্ত) সাইদুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক বগা ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল মোতালেব হাওলাদার, সাংগঠনিক সম্পাদক নাজিরপুর ইউপি চেয়ারম্যান ইব্রাহিম ফারুক, যুবলীগের সাধারন সম্পাদক কালাইয়া ইউপি চেয়ারম্যান এসএম ফয়সাল আহমেদ, আদাবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান সামসুল হক ফকিরসহ দলীয় নেতাকর্মীগন।