স্বাস্থ্য শিক্ষা সেবিকাদের মাঝে চিকিৎসা সহায়ক যন্ত্রপাতি বিতরণ

1

 

মজিবুর রহমান,দুমকি প্রতিনিধি ঃ পটুয়াখালীর দুমকিতে বে-সরকারী সেচ্ছাসেবি সংগঠন আশা’র সমন্বিত স্বাস্থ্য শিক্ষা প্রকল্পের সেবিকাদের ষান্মাষিক প্রশিক্ষন ও  চিকিৎসা সহায়ক যন্ত্রপাতি- ডিসপেঞ্চারি ব্যাগ ও ছাতা বিতরণ করা হয়েছে। বুধবার বেলা ১১টায় উপজেলা ব্রাঞ্চ রিসোর্স সেন্টারে আয়োজিত সভায় আনুষ্ঠানিক ভাবে ২০জন চিকিৎসা শিক্ষা সেবিকাদের মাঝে চিকিৎসা সহায়ক যন্ত্রপাতি বিতরণ করা হয়। রিজিওনাল ম্যানেজার মো: সাইয়্যেদ আলমের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় সিনিয়র জেলা ব্যবস্থাপক মো. মহ্উিদ্দিন শিকদার প্রধান অতিথি ছিলেন। দুমকি থানার অফিসার ইনচার্জ দিবাকর দাস, উপজেলা রিসোর্স সেন্টারের ইন্সেক্টর মিসেস নিলুফা ইয়াসমিন বিশেষ অতিথি ছিলেন। অন্যান্যের মধ্যে ব্রাঞ্চ ম্যানেজার, ফিল্ড অফিসারগন উপস্থিত ছিলেন। প্রশিক্ষক মিসেস নিলুফা ইয়াসমিন প্রশিক্ষন কর্মশালায় পাঠদান কৌশল, ছাত্র-ছাত্রীদের উপস্থিতি নিয়মিত করণে অবিভাবকদের স্বচেষ্ট করন ও ঝড়েপরা রোধ কল্পে নানাবিধ কৌশল সম্পর্কে ধারনা দেন। প্রশিক্ষক জনাবা নিলুফা ইয়াসমিন প্রশিক্ষন কর্মশালায় পাঠদান কৌশল ছাত্র-ছাত্রীদের উপস্থিতি নিয়মিত করণে অবিভাবকদের স্বচেষ্ট করন ও ঝড়েপরা রোধ কল্পে নানাবিধ কৌশল সম্পর্কে ধারনা দেন। উল্লেখ্য, বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা ”আশা” ২ দশকের ও বেশি সময় ধরে বাংলাদেশের দারিদ্র দূরীকরনের লক্ষ্যে কাজ করে আসছে। তারই অংশ হিসাবে পটুয়াখালী জেলায় ক্ষুদ্রঋণের পাশাপাশি স্বাস্থ্য সেবা ও প্রথমিক শিক্ষা শক্তিশালী করন কর্মসূচী পরিচালনা করছে। প্রাথমিক শিক্ষা কর্মসূচী জেলার গলাচিপা, রা্গংাবালী, দশমিনা, দুমকি ও মির্জাগঞ্জ উপজেলার ১৪টি ব্রাঞ্চে ০১ জন শিক্ষা অফিসার ১৪ শিক্ষা সুপার ভাইজার ২১০ জন শিক্ষা সেবিকার  মাধ্যমে  শিক্ষা  কার্য্যক্রম চলছে। প্রতিটি শিক্ষাকেন্দ্রে ২০-৩৫ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। শিশু শ্রেনী থেকে ২য় শ্রেনী পড়–য়া ছাত্র/ছাত্রীদের ঝড়েপড়া রোধে ও দরিদ্র,পশ্চাৎপদ পরিবারের ছাত্র/ছাত্রীদের শিক্ষায় সহায়তা করার লক্ষ্যে এ কর্মসূচী পরিচালিত হচ্ছে। প্রতিদিন ২ ঘন্টার সেশনে শিক্ষার্থীদের ক্লাশের পড়া তৈরী ও হোম ওয়ার্ক সম্পন্ন করতে সহায়তা দেয়া হয়। সারা বাংলাদেশে নিজস্ব অর্থায়নে মোট ৪৯টি জেলায় ৬৯৮টি ব্রাঞ্চের মাধ্যমে  ১০৪৭০ টি শিক্ষা কেন্দ্রের মাধ্যমে এ কার্য্যক্রম