স্ব স্ব অবস্থান থেকে নাগরিক সচেতনতা বৃদ্ধি পেলেই জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলা করা সম্ভব .. পৌর  মেয়র ডাঃ মোঃ শফিকুল ইসলাম

0

স্টাফ রিপোর্টারঃ স্ব স্ব অবস্থান থেকে নাগরিক সচেতনতা বৃদ্ধি পেলেই জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলা করা সম্ভব। কোন কর্তৃপক্ষের প্রয়োজন পড়ে না। তবে এ জন্য পৌরবাসীর সেবক হিসেবে পৌর কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে সচেতনতামূলক কর্মসূচির আয়োজন বৃদ্ধি করা হবে।সনাকের উদ্যোগে জলবায়ু অর্থায়ন ও প্রকল্প বাস্তবায়নে চাই স্বচ্ছতা, শুদ্ধাচার, জবাবদিহিতা এবং ক্ষতিগ্রস্ত জনগোষ্ঠীর অংশগ্রহণ আয়োজিত গণশুনানি অনুষ্ঠানে  প্রধান অতিথি পৌরসভার মেয়র ডা. মো: শফিকুল ইসলাম তার বক্তব্যে এ কথা বলেন। গণশুনানি’তে পটুয়াখালী পৌরসভা কর্তৃক বাস্তবায়িত “ডেভেলপমেন্ট অব ইনফ্রাসট্রাকচার টু ট্যাকেল ক্লাইমেট চেইঞ্জ ইমপেক্ট ইন পটুয়াখালী পৌরসভা”  প্রকল্প বিষয়ক ও নাগরিক সেবা সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন তথ্য প্রদান করেন এবং জনগণের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন ও পরামর্শ গ্রহণ করেন প্রধান অতিথি । তিনি আরও বলেন, আগামী  ২/৩ বছর হবে পটুয়াখালী পৌরসভার উন্নয়নের স্বর্নযুগ। এ সময় পটুয়াখালী পৌরসভায় ব্যাপক উন্নয়ন হবে তবে এ ধরনের উন্নয়নই শেষ কথা নয় কারন আগামী দিনগুলো উপকুলবাসির জন্য বিশেষ করে পটুয়াখালীবাসীর অত্যন্ত চ্যালেঞ্জের, সে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হলে এবং সকল উন্নয়নের শতভাগ সুফল ভোগ করতে হলে পৌরবাসিকে অবশ্যই সচেতন হতে হবে এবং চিন্তা চেতনায় মানসিকতায় ব্যাপক পরিবর্তন আনতে হবে। তিনি পটুয়াখালী পৌরসভার উন্নয়নে সকল শ্রেনি পেশার মানুষকে তার পাশে চান ও তাদের সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলা, অবকাঠামোর উন্নয়ন, পানি সরবরাহ, পয়:নিস্কাশন ও দৃষ্টিনন্দন পটুয়াখালী পৌরসভা গড়ে তোলার জন্য তার ব্যাপক পরিকল্পনার কথা সকলের সামনে তুলে ধরেন।পৌর কর্তৃপক্ষ তাদের বিভিন্ন সীমাবদ্ধতার মধ্যেও সর্বোচ্চ নাগরিক সেবা প্রদানের জন্য বদ্ধপরিকর বলে জানান। প্রধান অতিথি সনাক তথা টিআইবি’র জবাবদিহিতামূলক এ ধারাকে অব্যাহত রাখারও  আহ্বান জানান। তিনি বলেন, জলবায়ু অর্থায়নে সুশাসন ও নাগরিক প্রত্যাশা পূরণে গণশুনানি শীর্ষক আয়োজনের মাধ্যমে জনপ্রতিনিধি হিসেবে নাগরিকদের সরাসরি প্রশ্নের উত্তর দিতে পারায় আমি অত্যন্ত আনন্দিত। তিনি আরো বলেন, এ ধরনের কাজ টিআইবি-সনাক ব্যাপকভাবে করলে জনপ্রতিনিধিরাও জবাবদিহিতার মধ্যে চলে আসবে এবং উন্নয়নে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বৃদ্ধি পাবে।

জলবায়ু অর্থায়ন ও প্রকল্প বাস্তবায়নে চাই স্বচ্ছতা, শুদ্ধাচার, জবাবদিহিতা এবং ক্ষতিগ্রস্ত জনগোষ্ঠীর অংশগ্রহণ এ প্রত্যাশার ধারাবাহিকতায় ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) এর সহযোগিতায় এবং সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) পটুয়াখালী এর উদ্যোগে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় পটুয়াখালী পৌরসভার সভাকক্ষে সনাক সভাপতি মো: আবদুর রব আকন এর সভাপতিত্বে ও স্বজন সমন্বয়ক সৈয়দ মিজানুর রহমান এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিএফজি বিষয়ক উপকমিটির আহ্বায়ক পীযূষ কান্তি হরি, অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন টিআইবি’র সিনিয়র প্রোগ্রাম ম্যানেজার-সিএফজি মো. জাকির হোসেন খান, প্রোগ্রাম ম্যানেজার-সিই চিত্ত রঞ্জন রায়। এছাড়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পৌরসভার প্রধান নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আব্দুল হালিম ,মেডিকেল অফিসার ডাঃ  মোঃ একরামুল নাহিদ, কোষাধক্ষ এস এম শাহিন, পৌর কাউন্সিলর মোঃ নিজামুল হক, বাসুদেব কুন্ড, আঃ বারেক হাওলাদার, মোঃ দেলোয়ার হোসেন আকন,মতিন মাহমুদ জাহিদ সিকদার, মহিলা কাউন্সিলর সৈয়দা আকলেমুন্নেছা রুবী, জাহানারা রাজ্জাক, আওয়ামী লীগ নেতা গাজী হাফিজুর রহমান সবির, ব্লাস্ট্রের জেলা সমন্বয়কারী এ্যাড. মোঃ নিজাম উদ্দিন,পটুয়াখালী প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি স্বপন ব্যানার্জী, সনাক সদস্য রাধেশ্যাম দেবনাথ, এড. সহিদুর রহমান, পারভীন সুলতানা,  সুনীতি সুধা দাস, স্বজন সদস্য মো: আ: রব, কামাল হোসেন রফিক, তপন কর্মকার, বঙ্কিম চন্দ্র সুকুল, টিআইবি’র এরিয়া ম্যানেজার মো. হুমায়ুন কবীর, এসিস্টান্ট ম্যানেজার মো: শহিদুল ইসলাম। এছাড়া ইয়েস ও ইয়েস ফ্রেন্ডস সদস্যসহ বিভিন্ন শ্রেনি পেশার মানুষ গনশুনানি অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন।